Sunday, April 1, 2018

বাংলাদেশী মানবাধিকারকর্মী, আইনজীবী ও ব্লগার অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে চলমান আইনী নির্যাতন বন্ধ কর

বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব হিউম্যান রাইটস (বিআইএইচআর), লইয়ার্স ফর লইয়ার্স বাংলাদেশ এবং জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ যৌথভাবে যৌন প্রবৃত্তিগত সংখ্যালঘু/সমকামী ব্যক্তিদের সাংবিধানিক স্বীকৃতির দাবীর আন্দোলন সহ মানবাধিকারের চরম লংঘনের বিরুদ্ধে বলিষ্ট ভুমিকা রাখার কারণে মানবাধিকারকর্মী, আইনজীবী ও ব্লগার অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে চলমান আইনী নির্যাতন ও পুলিশই হয়রানী বন্ধ করে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে আপনার জরুরী ও কার্যকর হস্তক্ষেপ কামনা করছে।


নির্যাতিতের নাম ও পরিচয়:

শাহানূর ইসলাম সৈকত (দুলাল)
মহাসচিব, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব হিউম্যান রাইটস
সদস্য, জেলা বার এ্যাসোসিয়েশন, ঢাকা ও নওগাঁ।

নির্যাতনকারীর নাম ও পরিচয়:
(১) মোঃ জহুরুল ইসলাম, সদস্য, জেলা পরিষদ, নওগাঁ
(২) এস এম জোবায়ের হোসেন, উপ-পুলিশ পরিদর্শক, বদলগাছি থানা, নওগাঁ
(৩) মোঃ মাহবুবুর রহমান, সহাকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক, বদলগাছি থানা, নওগাঁ

জিডি নাম্বার ও তারিখ: বদলগাছি থানার জিডি # ৮৮৬, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং
মামলা নাম্বার, তারিখ ও ধারা: বদলগাছি থানার এনএফআইআর প্রসিকিউশন# ০১, ২৯ জানুয়ারী ২০১৮ ইং, দন্ডবিধির ৪২৭ ও ৫০৬ ধারা

গ্রেফতারী পরোয়ানা ইস্যুর তারিখ: ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং

ঘটনার সংক্ষিপ্ত বিবরণ:
নওগাঁ জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ জহুরুল ইসলাম গত ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে নওগাঁ জেলার বদলগাছি থানা বরাবর ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এই মর্মে একটি মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে যে শাহানূর ইসলাম এবং তার পরিবারের অন্যান্য দুইজন সদস্য গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখ সকাল আনুমানিক ৬:০০ ঘটিকার সময় জহুরুল ইসলাম এর সম্পত্তিতে উপস্থিত হয়ে আনুমানিক ৫০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকার ফসল নষ্ট করে এবং তাকে প্রকাশ্যে খুন যখমের হুমকি প্রদান করে।

অতঃপর, বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অভিযোগটি জিডি হিসেবে নথিভুক্ত করে উক্ত থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক এস এম জোবায়ের হোসেনকে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করে। তৎপর, গত ২ জানুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে তদন্তকারী কর্মকর্তা জিডিটি তদন্তের জন্য অনুমতির জন্য সংশ্লিষ্ট আদালতে আবেদন করে এবং তদন্তের অনুমতি প্রাপ্ত হয়ে অভিযোগকারীর সাথে পরস্পর যোগসাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্নীতি করে কোন প্রকার তদন্ত না করে উপরোক্ত অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে মর্মে দন্ডবিধির ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় শাহানূর ইসলাম ও তার পরিবারের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে গত ২৯ জানুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে বদলগাছি থানার ননএফআইআর প্রসিকিউশন নং ০১ নথিভুক্ত করে এবং সংশ্লিষ্ট আদালতে প্রেরণ করে।

পরবর্তীতে ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে বিজ্ঞ আদালত ননএফআইআর প্রসিকিউশন প্রতিবেদনটি আমলে গ্রহণ করে শাহানূর ইসলাম ও তার প্রতিবারের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে গত ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে সংশ্লিষ্ট আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য সমন জারী করে এবং বদলগাছি থানা কর্তৃপক্ষকে উক্ত সমন যথাযথভাবে জারী করার আদেশ প্রদান করে।

পরবর্তীতে বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উক্ত থানার সহাকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মাহবুবুর রহমানকে সমন জারীর দায়িত্ত্ব প্রদান করলে তিনি অভিযোগকারী ও তদন্তকারী কর্মকর্তার সাথে পরস্পর যোগ সাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্ণীতির মাধ্যমে গত ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে স্বাক্ষর জাল করে মিথ্যাভাবে শাহানূর ইসলাম ও তার পরিবারের দুই সদস্যের নামে সমন জারী দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করে।

উল্লেখিত জাল স্বাক্ষরযুক্ত সমন জারী দেখানোর ফলে বিজ্ঞ আদালত গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ইং তারিখে শাহানূর ইসলাম ও তার পরিবারের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করে এবং উক্ত গ্রেফতারী পরোয়ানামূলে গত ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে শাহানূর ইসলামের পরিবারের এক সদস্যকে বদলগাছি থানা পুলিশ গ্রেফতার করে সংশ্লিষ্ট আদালতে প্রেরণ করে।

পরবর্তীতে ২১ ফেব্রূয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে শাহানূর ইসলাম ও তার পরিবারের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট আদালত থেকে জামিন প্রাপ্ত হন।

এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, অভিযোগে বর্ণিত ঘটনার তারিখ ও সময়ে শাহানূর ইসলাম আন্তর্জাতিক শরনার্থী আইন বিষয়ক একটি প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ ও ব্যক্তিগত কাজে ইতালী, মোনাকো ও ফ্রান্স ভ্রমন শেষে সংযুক্ত আরব আমিরাত এর দুবাই আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে ঢাকা ফেরার উদ্দেশ্যে এমিরেটস এয়ারলাইন্স এর ইকে ০৫৮২ নং ফ্লাইটে অবস্থান করছিলেন।

সুপারিশঃ
বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব হিউম্যান রাইটস, লইয়ার্স ফর লইয়ার্স বাংলাদেশ এবং জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ নির্যাতিত মানবাধিকারকর্মী, আইনজীবী ও ব্লগার অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে চলমান আইনী নির্যাতন ও পুলিশই হয়রানীর বিষয়ে ভীষনভাবে উদ্বিগ্ন এবং অবিলম্বে তার বিরুদ্ধে চলমান আইনী নির্যাতন ও পুলিশই হয়রানী বন্ধ করাসহ তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং মিথ্যা মামলা দায়েরকারী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জোড় দাবী জানাচ্ছে।

অনুগ্রহপূর্বক, বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে নির্যাতিত মানবাধিকারকর্মী, আইনজীবী ও ব্লগার অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে চলমান আইনী নির্যাতন ও পুলিশই হয়রানী অবিলম্বে বন্ধ করা সহ তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং মিথ্যা মামলা দায়েরকারী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে নিম্নলিখিত ব্যক্তি বর্গের নিকট আবেদন প্রেরণ করুন।

১। জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ
মহামান্য রাষ্ট্রপতি
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ
রাষ্ট্রপতির কার্যালয়
বঙ্গভবন, ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ president@bangabhaban.gov.bd


২। জনাব শেখ হাসিনা
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়
তেজগাঁও, ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ pm@pmo.gov.bd অথবা ps1topm@pmo.gov.bd অথবা psecy@pmo.gov.bd

৩। জনাব বিচারপতি মাহমুদ হোসেন
মাননীয় প্রধান বিচারপতি
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ
প্রধান বিচারপতির কার্যালয়
সুপ্রীম কোর্ট অব বাংলাদেশ
ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ chief@bdcom.com অথবা supremec@bdcom.com

৪। জনাব আনিসুল হক
মাননীয় মন্ত্রী
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
বাংলাদেশ সচিবালয়
ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ info@minlaw.gov.bd

৫। জনাব আসাদুজ্জামান খান
মাননীয় মন্ত্রী
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
বাংলাদেশ সচিবালয়
ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ minister@mha.gov.bd

৬। জনাব কাজী রিয়াজুল হক
চেয়ারম্যান
জাতীয় মানবাধিকার কমিশন
বিটিএমসি ভবন, কাওরানবাজার
ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ info@nhrc.org.bd

৭। জনাব মোঃ জাবেদ পাটোয়ারী
মহা পুলিশ পরিদর্শক
বাংলাদেশ পুলিশ
পুলিশ সদর দপ্তর
ফুলবাড়িয়া
ঢাকা, বাংলাদেশ
ইমেইলঃ ig@police.gov.bd


============================================================ Advocate Shahanur Islam | An Young, Ascendant, Dedicated Human Rights Defender, Lawyer and Blogger in Bangladesh, Fighting for Ensuring Human Rights, Rule of Law, Good Governance, Peace and Social Justice For the Victim of Torture, Extra Judicial Killing, Force Disappearance, Trafficking in Persons including Ethnic, Religious, Sexual and Social Minority People.
Post a Comment